জেনে নিন শরীরে পানিশূন্যতার ৫ টি লক্ষণ

পানি ছাড়া মানুষের জীবন অচল । পানি আমাদের শরীরের ভারসাম্য ঠিক রাখে । ও শরীরের তরলের পরিমান ঠিক রাখে । শরীলের তাপমাত্রা ঠিকঠাক রাখে । পানি ছাড়া কোন প্রাণি জীবন যাপন করতে পারে না । আমারা সাধারণত বলে থাকি যে পানির অপর নাম জীবন । পানি আমাদের শরীলের টিস্যু ও মেরুদন্ড ও জয়েন্টকে সুরক্ষা দিয়ে থাকে । আবার পানি আমাদের হজম করতে সাহায্য করে থাকে । বেশি বেশি পানি পান করার কারনে আমাদের ত্বক ভালো থাকে । নিয়োমিত পানি পান না করলে আমাদের উপরের সমস্যা গুলো হতে পারে । তাই আমাদের প্রতিদিন বেশি করে পানি পান করা উচিত । আমাদের শরীরে যদি পানির অভাব হয়ে থাকে তাহলে ইলেকট্রোলাইটের ভারসাম নষ্ট হয়ে শরীরের কাযক্রম ব্যাহত হতে পারে । আমাদের প্রতিদিন ১০ থেকে ১২ গ্লাস পানি পান করা উচিত ।  শরীরে পানি শুনতা দেখা দিলে সাধারাণ মাথা বেথা থেকে শুরু করে মুখের গন্ধ হয়ে থাকে । শরীরের পানিশূন্যতার ৫ টি ভয়াবহ লক্ষণ নিচে আলোচনা করা হলো।


গ্লাসে পানির ছবি
জেনে নিনশরীরেপানিশূন্যতার ৫ টি লক্ষণ

 

শরীরে পানি শূন্যতার লক্ষণগুলো কী কী
 
মাথা ব্যথা করা
 
পানি শূন্যতা হলে অনেক সময় আমাদের মাথা ব্যথা হয়ে থাকে । কারণ পানিশূন্যতার কারণে মস্তিষ্কে অক্সিজেনের ও রক্তে প্রবাহ কমে গিয়ে মাথা ব্যথা হয়ে থাকে ।
মুখে দুর্গন্ধ
 
আমাদের মুখে দুগন্ধ হবার আর একটি কারণ হলো পানি শূন্যতা । শরীরে পানির অভাব হলে মুখে কম লালা হয়ে থাকে । তার কারণে মুখে দুগন্ধ হয়ে থাকে ।
অবসন্ন ভাব
 
শরীরে পানিশূন্যতা আরেকটি কারণ হলো অবসন্নতা ভাব ।  পানিশূন্যতা হলে শরীরে অক্সিজেনের পরিমাণ কমে যায় এতে করে শরীর অবসন্ন হয়ে যায় ।
প্রসাবের রং এর পরিবর্তন
 
শরীরে পানিশূন্যতা হলে সাধারণত প্রসাব এর রং পরিবর্তন হয়ে থাকে । শরীরে পানির পরিমাণ ঠিক থাকলে প্রসাব হালকা হলুদ হয় এবং শরীরে পানিশূন্যতা বা পানির অভাব হলে প্রসাব গারো হলুদ হয়ে থাকে । তাই শরীর সুস্থ রাখতে বেশি বেশি করে প্রতিদিন পানি পান করা উচিত । একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের জন্য দিনে ১০ থেকে ১২ গ্লাস পানি পান করা উচিত । শরীরে পানির অভাব হলে উপরের ৫ টি মারাত্মক রোগ হতে পারে তাই খাবার আগে ও খাবার পরে প্রচুর পরিমাণে পানি পান করা উচিত । তাই নিজে বেশি বেশি করে পানি পান করুন এবং অপরকে পানি পান করতে উৎসাহিত করুন । শরীর সুস্থ রাখতে পানি একটি অতি প্রয়োজনীয় ।
Spread the love

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *