কিভাবে আপোষনামা তৈরি করতে হয় ও লেখার নিয়ম

আজকের বিষয় হলো কি ভাবো একটি আপোষ নামা লিখতে হয়। অনেক সময় আমরা দেখতে পাই যে পারিবারিক সম্যাসার অথবা নানা রকমের করণে এক অপর পক্ষকে মামলা করে থাকি ভুল করে। পারিবারি ভাবে আপোষ-মীমাংসা করার ফলে মামলা তুলে নিতে হয়ে। একটি আপোষ নামা ফরমেট এর মাধম্যে আপনিও আপোষ নামার জন্য আবেদন করতে পারবেন। নিচে ফরমেটটির মাধ্যমে আপনি ও আপনার নাম ও ঠিকানা  ও তর্থ্য দিয়ে আপোষ নামা তৈরি করতে পারবেন।

 

আপোষ নামা

 

তারিখ:-

 

১ম পক্ষঃ-                                                                                    ২য় পক্ষঃ-

 

মোছাঃ ………………  মোঃ ……………….

পিতাঃ মোঃ ………… পিতা মোঃ………..

সাং- ………                                                                                 সাং- ……………….

থানাঃ- ………… থানাঃ- …………..

জেলাঃ- …………                                                                         জেলাঃ- …………                                                                                                                      পক্ষেঃ – ………….

 

 

১ম পক্ষ ও ২য় পক্ষ উভয় স্বামী এবং স্ত্রী। তাহাদের মধ্যে মনোমালিন্যের কারণে উভয়ে আলাদা ভাবে বসবাস করায় ১ম পক্ষ ক্ষুব্ধ হইয়া ২য় পক্ষ ও তাহার পিতা,মাতা ও বোনের বিরুদ্ধে যোৗতুক নিরোধ আইনের ……… নং ধারা মতে সি, আর …./…. নম্বর এবং দেন মোহর ও খোরপোষ আদায়ের  নিমিত্তে পারিবারিক ; …./…. নম্বর মোকদ্দমা দায়ের করে। উভয় পক্ষের বিরোধটি স্থানীয় মহৎ ব্যক্তিগন জানিতে পারিয়া উভয় পক্ষের লোকজন ডাকিয়া আলোচনা ক্রমে আপোষ-মীমাংসা করিয়া দেন। আপোষ-মীমাংষা উভয় পক্ষ মানিয়া লইয়াছেন। আপোষ-মীমাংষা মোতাবেক পক্ষদ্বয়ের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ হইবে। ১ম পক্ষ নিজ ইচ্ছায় ২য় পক্ষকে তালাক প্রদান করিলেন এবং ১ম পক্ষের পাওনা দেন মোহর ও খোরপোষের টাকা মধ্যে ২য় পক্ষ ….,০০০/- (……… হাজার) টাকা ১ম পক্ষকে প্রদান করিলেন এবং ১ম পক্ষের দেয়া উপঢৌকন স্বরুপ জিনিস পত্র ২য় পক্ষ ১ম পক্ষকে ফেরৎ দিলেন। ১ম পক্ষ বাকী সমূদয় দাবী পরিত্যাগ করিলেন। ১ম পক্ষের দায়ের কৃত সি. আর ……./….. ও পারি; …../.. নম্বর মোকদ্দমা নিজ ইচ্ছায় প্রত্যাহার করিয়া লইবেন। বর্তমানে উভয় পক্ষদ্বয়ের মধ্যে আর বিরোধ রহিল না এবং ভবিষ্যতেও থাকিবে না।

 

 

১ম পক্ষের স্বাক্ষর                                                                          ২য় পক্ষের স্বাক্ষর

 

 

উপস্থিত ব্যক্তি বর্গের স্বাক্ষর

 

১।

২।

৩।

৪।

৫।

৬।

 

 

আরো পড়ুনঃ কিভাবে চারিত্রিক সনদপত্র টি তৈরি করবো ?

আপোষনামা লেখার নিয়ম
Spread the love

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *