বিদেশ থেকে কতটুকু স্বর্ণ আনা যায়

বিদেশ থেকে কতটুকু স্বর্ণ আনা যায় । বিদেশ থেকে স্বর্ণ আনার নিয়ম

বিদেশ থেকে স্বর্ণ আনার নিয়ম গুলো জানুন এই পোস্টেঃ আপনি কি প্রবাস থেকে দেশে ফিরছেন? আপনার ও পরিবারে জন্য ক্রয় করেছেন স্বর্ণ অলংকার।  একজন প্রবাসী বিদেশ থেকে কতটুকু স্বর্ন নিয়ে আসতে পারবেন এই বিষয়ে আপনার কিছু জানা না থাকলে পড়তে পারেন বিশাল ঝামেলার মুখে। একজন প্রবাসি কতটুকু স্বর্ণ বহণ করা বৈধ আর কতটুর বহণ করা অবৈধ এই তথ্য আপনার মত অনেকের জানা নেই। সঠিক আইন না জেনে বিদেশ থেকে স্বর্ণ দেশে আনলে কারাভোগের মত বড় ঝামেলাতে পড়তে পারেন আপনি। তাই বেশি লাভের আশায় বেশি স্বর্ণ বা সোনা দেশে আসার সময় বহণ করবেন না। আজকের এই আলোচনায় আমরা জানবো যে বিদেশ থেকে বৈধ উপায়ে কতটুকু স্বর্ণ বার এবং স্বর্ণের অলংকার আনতে পারবেন। আপনি যদি একজন প্রবাসি হয়ে থাকেন তাহলে আপনি বাংলাদেশে শর্ত অনুসারে এক সাথে মোট ২৩৪ গ্রাম স্বর্ণ বার ও ১০০ গ্রাম স্বর্ণের অলংকার সাথে করে আনতে পারবেন। 

 

বিদেশ থেকে স্বর্ণ আনার নিয়ম

 

বিদেশ থেকে প্রবাসীরা কতটুকু স্বর্ণ সোন নিতে পারবে উক্ত বিষয়ে আমরা উপরে আলোচনা করেছি আশা করা যায় আপনি সহজে বুঝতে পারছেন তাই না। তবে বিদেশ থেকে স্বর্ণ আনার নিয়ম রয়েছে সঠিক নিয়ম জেনে স্বর্ণ আনলে আপনি কোন প্রকার আইনি ঝামেলায় পড়বেন না। প্রতি এক ভরি সমান স্বর্ণ বিদেশ থেকে আনতে হলে আপনাকে এর জন্য ২০০০+ টাকা শুল্ক-কর পরিশোধ করতে হবে। তবে আপনি যদি মাত্র ১ গ্রাম স্বর্ণ ও দেশে আসার সময়ে আনেন তাহলে আপনাকে তবুও শুল্ক প্রদান করতে হবে। এভাবে শুল্ক পরিশোধ এর মাধ্যমে আপনি মোট ২৩৪ গ্রাম স্বর্ণ বৈধ ভাবে দেশে সাথে আনতে পারবেন।

অনেক সময় অনেক প্রবাসি ভাই ও বোনরা না জেনে অনেক স্বর্ণ বার ও অলংকার নিয়ে আসেন। এক্ষেত্রে কাস্টমসে আটকে দিলে কি করবেন জানেন কি? আটককৃত স্বর্ণের রশিদ বা detention memo বুঝে নিবেন। আটককৃত স্বর্ণ বার পরবতীতে adjudication প্রক্রিয়ায় আমদানি ও রপ্তানি নিয়ন্ত্রক দপ্তরের ছাড় পত্র উপস্থাপন শুল্ক করাদি এবং অর্থদন্ড পরিশোধ সাপেক্ষে ফেরত পেতে পারবেন। তবে আপনি যদি অবৈধ ভাবে লুকিয়ে বা গোপনে আনতে চেষ্টা করেন তাহলে চোরাচালের কারণে ফৌজদারি মামলা পড়বেন। 

 

বিদেশ থেকে স্বর্ণ নেওয়া নিয়ম

 

১। একই ধরণের নয় এমন মোট ১২ স্বর্ণ অলংকার  আপনি সাথে আনতে পারেবন।

২। ১০০ গ্রাম পযর্ন্ত শুল্কমুক্ত ভাবে সাথে আনতে পারবেন।

৩। ১০০ গ্রাম এর বেশি অলংকার সাথে আনলে প্রায় ১৫০০ টাকার মত শুল্ককর প্রদান করতে হবে।

৪। শর্তসাপেক্ষ শুল্ক-কর পরিশোধের মাধ্যমে সবোর্চ্চ ২০০ গ্রাম পযর্ন্ত স্বর্ণ অলংকার আনতে পারবেন।

৫। প্রতি ভরি অথবা ১১.৬৬ গ্রাম স্বর্ণের জন্য ২০০০ টাকা শুল্ক-কর প্রদান করতে হবে।

 

এক ভরি সমান কত গ্রাম

 

আপনি জানেন কি এক ভরি সমান কত গ্রাম স্বর্ণ হয়ে থাকে? আন্তর্জাতিক হিসাব অনুসারে প্রায় ১১.৬৬ গ্রাম স্বর্ণ সমান হলো ১ ভরি।

 

 

বিদেশ থেকে কয়টি মোবাইল আনা যাবে

 

একজন প্রবাসী বিদেশ থেকে আসার সময় মোট কয়টি মোবাইল ফোন নিয়ে আসতে পারবেন শুল্ক-কর দিতে হবে কিনা চলুন এই আলোচনায় সেটা জানাযাক। বিদেশ থেকে একজন প্রবাসি নিজের সাথে আমদানি ছাড়ায় মোট ৮টি মোবাইল ফোন নিয়ে আসতে পারবেন। ৮ টি মোবাইল ফোন এর বেশি আনতে চাইলে বিটিআরসি এর কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে। আমদানি অনুমতি না থাকলে বাকি মোবাইল ফোন গুলো কাস্টম অফিস আটক করবে। বিদেশ থেকে প্রবাসীরা নিজের ব্যবহারিত ২ টি মোবাইল ফোন কোন প্রকার কর ছাড়ায় নিতে পারবেন। বাকি ফোন গুলোর জন্য ভিন্ন ভিন্ন শুল্ক-কর প্রদান করতে হবে।

Spread the love

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *